চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা বাড়াতে শাহবাগে অবরোধ

1454139249চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা বাড়ানোর দাবিতে একদল বিক্ষোভকারী রাজধানীর শাহবাগ চত্বর অবরোধ করে রাখে। শুক্রবার বিকেল সোয়া তিনটা থেকে সোয়া চারটা পর্যন্ত তারা সেখানে অবস্থান নেয়ায় চারদিকের রাস্তা বন্ধ হয়ে যায়। ফলে চারদিকের সড়কে সৃষ্টি হয় ব্যাপক যানজট।
বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র পরিষদের ব্যানারে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রায় ৩শতাধিক শিক্ষার্থী এতে অংশ নেয় এবং তাদের দাবি দাওয়ার পক্ষে মুহুর্মুহু স্লোগানে প্রকম্পিত করে রাখে শাহবাগ চত্বর। পরে পুলিশে এসে তাদের ব্যানার কেড়ে নেয় এবং শাহাবাগ চত্বর থেকে তাদের সরিয়ে দেয়ার চেষ্টা করে। এসময় বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে পুলিশের ধাক্কাধাক্কি হয়। পুলিশ সংগঠনের সভাপতি ইমতিয়াজ হোসেন ও সাংগঠনিক সম্পাদক নুরুজ্জামান চন্দনকে আটক করে। এতে বিক্ষোভাকারীরা কিছুটা পিছিয়ে গিয়ে জাতীয় যাদুঘরের সামনে অবস্থান নেয় এবং অনবরত স্লোগান দিতে থাকে।
এর আগে বিক্ষোভকারীদের সরে যাওয়ার জন্য পুলিশ বেশ কয়েকবার মাইকিং করে। এছাড়া জলকামানসহ একদল দাঙ্গা পুলিশ সেখানে অবস্থান নেয়।
ডিএমপির রমনা জোনের এডিসি মো, ইব্রাহীম খান বলেন, ‘ওরা প্রথমে যাদুঘরের সামনে মানববন্ধন করছিল। মানববন্ধন থেকে ১০ মিনিটের জন্য শাহবাগ মোড়ে মিছিল করার অনুমতি নেয়। কিন্তু তারা মিছিল করতে গিয়ে শাহবাগ মোড় অবরোধ করে রাখে। এতে জনদুর্ভোগ সৃষ্টি হওয়ায় আমরা তাদের সরিয়ে দিয়েছি।’
তিনি বলেন, ‘যাদের আটক করা হয়েছে, জিজ্ঞাসাবাদের পর তাদের ছেড়ে দেয়া হবে।’
বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র পরিষদের সাধারণ সম্পাদক তিতুমীর কলেজের সঞ্জয় কুমার দাস বাংলামেইলকে বলেন, ‘আমরা সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা ৩৫ বছর করার দাবিতে আন্দোলন করে যাচ্ছি। কারণ সেশনজটসহ নানা কারণে আমাদের লেখাপড়া শেষ হতে হতে চাকরির বয়স প্রায় ফুরিয়ে যায়। তিতুমীর থেকে আমার মাস্টার্স শেষ করতে ২৮ বছর ৬ মাস সময় লেগেছে, কখন চাকরির প্রস্তুতি নেব, আর কখনই বা পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে আমরা চাকরি পাব?’
আরেকজন আন্দোলনকারী বলেন, ‘সরকার অবসরের বয়সসীমা বাড়িয়ে ৫৭ বছর থেকে ৫৯ বছর করেছে। মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য চাকরির বয়স ৬০ বছর করা হয়েছে। শিক্ষকদের ৬৫ বছর ও বিচারপতিদের অবসরের বয়স ৬৭ বছর করা হয়েছে। অথচ সরকারি চাকরিতে প্রবেশের বয়সসীমা সেই ৩০ বছরই রাখা হয়েছে। এতে দিন দিন বেকারের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে সেশন জটের কারণে একজন শিক্ষার্থীর লেখাপড়া শেষ করতেই চাকরিতে ঢোকার বয়স ফুরিয়ে আসে।’
এদিকে বিক্ষোভকারীদের সরিয়ে দেয়ার পর থেকে শাহবাগ মোড়ের যান চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে।