সিকিমের সীমান্তবর্তী বাসিন্দাদের সরিয়ে নিচ্ছে ভারত!

ডোকালাম ইস্যুতে চীন-ভারত চলমান উত্তেজনার মাঝে সিকিমের সীমান্তবর্তী স্থানীয় বাসিন্দাদের সরিয়ে নিচ্ছে ভারত। ভারতীয় সেনাবাহিনী নির্দেশের পরই তাদের সরিয়ে নেয়া হচ্ছে।

দেশটির স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম জিনিউজ এক প্রতিবেদনে বলছে, ভারত-ভুটান-চীন সীমান্তবর্তী নাথাং গ্রামের ভারতীয় বাসিন্দাদেরকে শিগগিরই তাদের বাড়িঘর ছেড়ে অন্যত্র আশ্রয় নেয়ার নির্দেশ দিয়েছে দেশটির সেনাবাহিনী। ডোকালাম থেকে মাত্র ৩৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত নাথাং।

একটি সড়ক নির্মাণ কাজে চীনা সেনাবাহিনীর বাঁধা দেয়াকে কেন্দ্র করে প্রায় দুই মাস ধরে চীন-ভারত উত্তেজনা তুঙ্গে।

এদিকে ভারতীয় সেনাবাহিনীর ৩২-কোরের কয়েক হাজার সদস্যকে সুকনা থেকে ডোকালামে যাওয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। ভারতীয় সেনাবাহিনীর অতিরিক্ত এসব সেনাসদস্যের আবাসের জন্য গ্রাম খালি করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে কি না তা এখনো পরিষ্কার নয়।

হঠাৎ সশস্ত্র সংঘর্ষ শুরু হলে বেসামরিক হতাহতের ঘটনা এড়াতে ভারতীয় সেনাবাহিনী পূর্ব সতর্কতা হিসাবে এই পদক্ষেপ নিয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ডোকালামের মালিকানা নিয়ে চীনের বারবার হুমকির মাঝে ভারতীয় সেনাবাহিনীর এই পদক্ষেপ গুরুত্বের সঙ্গে দেখা হচ্ছে।

বুধবার চীনের রাষ্ট্র নিয়ন্ত্রিত দৈনিক গ্লোবাল টাইমসের এক প্রতিবেদনে ভারতকে সতর্ক করে দিয়ে বলা হয়, যুদ্ধের ক্ষণগণনা শুরু হয়েছে। ভারতের জ্ঞান ফেরানো এবং ডোকালাম থেকে সেনা প্রত্যাহার করে নেয়া উচিত।

বিবদমান সিকিমে চীনও অতিরিক্ত সেনা মোতায়েন করেছে। গ্লোবাল টাইমসের সম্পাদকীয়তে বলা হয়, সময় থাকতে নয়াদিল্লির জ্ঞান ফেরানো উচিত। সাত সপ্তাহ ধরে চলমান বিতর্কে সিকিমে শান্তিপূর্ণ আলোচনার দরজা বন্ধ হয়ে গেছে।